পরনের কাপড় নেই, স্ত্রীর ওড়না পরেন স্বামী!

পরনের কাপড় নেই, স্ত্রীর ওড়না পরেন স্বামী!

পটুয়াখালীর ১ নং ওয়ার্ডের প্রথম লেনের বোহালগাছিয়া এলাকায় বাস করে (৯৫) উর্ধ্বো সুলতান ডাক্তার ও (৭০) উর্ধ্বো সকিনা বেগম ।

সুলতান ডাক্তার এর স্ত্রী সারা দিন ভিক্ষা করে অন্যর বাসা থেকে পান্তা ভাত নিয়ে আসে। পরের দিন সেই ভাত রোদে শুকিয়ে

আবার রান্না করে খায়। তাদের কাছে তো নতুন কোন কিছু কেন প্রায় সপ্নের মত। তাই পেটের দ্বায় স্ত্রী সারাদিন ভিক্ষা করে অন্যের বাসা থেকে পান্তা ভাত এনে কোন রকমে জীবন বাঁচান। কিন্তু এতে কোন রকমে  পেট চললেও গা বাঁচে না।

তাই সুলতান ডাক্তার বাসায় সারাদিন স্ত্রী ওড়না পড়ে থাকেন। আর ঘরে যে কয়টি লুঙ্গি আছে সব গুলো ছেড়া।

আর ঘরে যা আছে তাও অন্যের কাছ থেকে পাওয়া পুরনো জামা কাপড়।

পটুয়াখালীর সদর উপজেলার আউলিয়াপুর এলাকার মৃত মোছলেম ডাক্তার এর ছেলে সুলতান ডাক্তার।

পারিবারিক ভাবে এই একই এলাকার বাসিন্দা ডাক্তার নূর মোহাম্মদের মেয়ে সকিনা বেগমে কে বিয়ে করেন সুলতান ডাক্তার।

এক সময় তাদের ঘরে জন্ম নেয় দুই ছেলে মোস্তফা ও মোশাররফ । সুলতান ডাক্তার বলেন  তারা এখন বড় হয়েছে তাই দুই জনেই ঢাকায় রিকশা চালায় । তাদের ও নাকি বেহাল অবস্থা তাই বাবা-মা এর দেখা শোনা করতে পারে না তারা।

সুলতান ডাক্তার আরো বলেন করোনার কারনে তিন মাস বাসা থেকে বের হতে পারে নি।আল্লাহ এই সময় তাদের চালিয়েছে। মানুষ যা দিয়েছে তা দিয়ে সংসার কোন রকম দিন চলছে। কিন্তু বয়েস বাড়ছে তাই প্রতিদনি ৪০ টাকার ওষুধ লাগে।

তার স্ত্রী সারাদিন যা ভিক্ষা করে আনে তাতে কোন রকম ওষুধ কেনা আর ঘর ভাড়ার টাকা হয়।

কিন্তু বর্তমান সময়ে দিন যেন আর চলে না। এমন দুর র্দিনে বেশ কয়েক স্থানীয় কাউন্সিলরের কাছে বয়ষর্ক ভাতার জন্য আবেদন করলেও এখনো তা মেলেনি। এখন তাদের শুধু একটাই আবেদন সরকার তাদের জন্য বয়ষর্ক ভাতা দেন। যেন শেষ সময়ে একটু দু’মুঠো ভাত খেতে পারে।

 

বাজারে চা খেতে গেলেন স্বামী, অভিমানে স্ত্রীর আত্মহত্যা।

পদ্মা নদীতে জালের জালে ধরা পড়লো ২১ কেজি ওজনের একটি কাতল মাছ।

 

Scroll to Top